ফ্রিল্যান্সিং কোর্স / আমাদের সার্ভিস

আধুনিক কম্পিউটারের জনক কে তিনি কোন দেশের নাগরিক

আপনি কি আধুনিক কম্পিউটার সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন? তাহলে আজকের এই পর্বটি আপনার জন্য।কারন আজকের এই পর্বে আপনি আধুনিক কম্পিউটার সম্পর্কে বিভিন্ন ধরনের প্রশ্ন এবং সেগুলোর উত্তর নিয়ে আলোচনা করবো।

আজকের এই পর্বে জানতে পারবেন আধুনিক কম্পিউটারের জনক কে(adhunik computer er jonok ke), তিনি কোন দেশের নাগরিক, কেন তাকে জনক বলা হয়ডিজিটাল কম্পিউটারের জনক কে, সফটওয়্যার এর জনক কে, ইন্টারনেট ও কম্পিউটারের জনক কে, পার্সোনাল কম্পিউটারের জনক কে, সুপার কম্পিউটারের জনক কে, প্রথম কম্পিউটারের জনক কে ইত্যাদি।

তাহলে চলুন শুরু করা যাক,

বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরিক্ষায় আধুনিক কম্পিউটার নিয়ে নানান ধরনের প্রশ্ন আসে। তাই আজকের এই পর্বে কম্পিউটার নিয়ে কিছু কমন প্রশ্ন এবং সেগুলোর উত্তর নিয়ে আলোচনা করা হবে।

আধুনিক কম্পিউটারের জনক কে (adhunik computer er jonok ke)

আধুনিক কম্পিউটারের জনক হলো বিজ্ঞানী চার্লজ ব্যাবেজ ।তবে অনেক পাঠ্যবইয়ে ভন নিউম্যান কে আধুনিক কম্পিউটারের জনক বলে আখ্যায়িত করা হয়েছে।

যাইহোক, চার্লজ ব্যাবেজ ১৮১০ সালে সর্বপ্রথম চিন্তা করেন কিiভাবে যান্ত্রিক উপায়ের মাধ্যমে সংখ্যা ও সারণী গণনা করা যায়। এর জন্য পরবর্তীতে তিনিই একটি যন্ত্র আবিষ্কারের কথা চিন্তা করেন।

এরপর তার ২০ বছর পর অর্থাৎ ১৮৩০ সালে একটি যন্ত্র আবিস্কার করেন যেটা প্রথমদিকে কোন ধরনের বুদ্ধিমত্তা ছাড়াই শুধু মাত্র গণনার কাজ করার জন্য ব্যবহার করা হতো।

আধুনিক কম্পিউটারের জনক কোন দেশের নাগরিক

আধুনিক কম্পিউটারের জনক চার্লস ব্যাবেজ ছিলেন একজন ব্রিটিশ নাগরিক যিনি ২৬শে ডিসেম্বর, ১৭৯১ সালে জন্ম গ্রহন করেন এবং ১৮ই অক্টোবর, ১৮৭১ মৃত্যু বরন করেন।

চার্লস ব্যাবেজ একাধারে ছিলেন প্রকৌশলী, গণিতবিদ, আবিষ্কারক ও দার্শনিক।

কম্পিউটারের জনক কে কেন জনক বলা হয়

চার্লস ব্যাবেজকে আধুনিক কম্পিউটারের জনক বলা হয় কারন তিনি সর্বপ্রথম অ্যানালিটিক্যাল ইঞ্জিন নামক যান্ত্রিক কম্পিউটার তৈরির পরিকল্পনা করেন, কম্পিউটার তৈরির জন্য ইঞ্জিনের নকশা তৈরি করেন এবং নিজের উদ্যোগে গবেষণা করে ১৮৩০ সালে একটি যান্ত্রিক কম্পিউটার তৈরি করেন। 

যদিও সেই সময়ের দেশের সরকার তার এই উদ্যোগকে আর্থিক সহায়তা দেন। কিন্তু সেটা দীর্ঘ সময়ের জন্য ছিলো না।

ডিজিটাল কম্পিউটারের জনক কে

জন ভন নিউম্যানকে ডিজিটাল কম্পিউটারের জনক বলা হয়। তিনি একজন হাঙ্গেরীয় বংশদূত ও মার্কিন গণিতবিদ ছিলেন। তার সম্পর্কে আরো জানতে হলে আপনি ইন্টারনেটে প্রচুর তথ্য পেয়ে যাবেন।

আধুনিক কম্পিউটারের জনক

সফটওয়্যার এর জনক কে

বিল গেটস হচ্ছেন সফটওয়্যারের জনক। তিনি সর্বপ্রথম ১৯৭৫ সালের ৪ এপ্রিল মাইক্রোসফট কর্পোরেশন নামে একটি সফটওয়্যার কোম্পানি গড়ে তুলেন। তার সাথে ছিলেন পল অ্যালেন নামে আরো একজন ব্যক্তি।

ইন্টারনেট ও কম্পিউটারের জনক কে

ইন্টারনেটের জনক হচ্ছেন ভিনটন জি কার্ফ। ১৯৬৯ সালে সর্বপ্রথম পুরো বিশ্ব ইন্টারনেটের সাথে পরিচিতি লাভ করে। যদিও তিনি কাজটি একা করেননি। তার সাথে আরো অনেক ব্যক্তি জড়িত রয়েছে।

পার্সোনাল কম্পিউটারের জনক কে

পিসি বা পার্সোনাল কম্পিউটারের জনক হলেন আধুনিক কম্পিউটারের জনক বিজ্ঞানী চার্লস ব্যাবেজ।

সুপার কম্পিউটারের জনক কে

সুপার কম্পিউটারের জনক হলেন বিজ্ঞানী সেইমার ক্রে। তিনি সর্বপ্রথম ১৯৬০ সালে একটি সুপার কম্পিউটারের ডিজাইন তুলে ধরেন। তার মাধ্যমেই সুপার কম্পিউটারের যাত্রা শুরু হয়।

প্রথম কম্পিউটারের জনক কে

চার্লস ব্যাবেজকে (Charles Babbage) প্রথম কম্পিউটারের জনক বলা হয়। কারন তিনিই ইতিহাসে সর্বপ্রথম গননার কাজের জন্য ১৮৩০ সালে একটি যন্ত্র আবিস্কার করেন যাকে পরবর্তীতে কম্পিউটার বলে আখ্যায়িত করা হয়।

তো এই ছিলো, আধুনিক কম্পিউটারের জনক কে(adhunik computer er jonok ke), তিনি কোন দেশের নাগরিক, কেন তাকে জনক বলা হয়ডিজিটাল কম্পিউটারের জনক কে, সফটওয়্যার এর জনক কে, ইন্টারনেট ও কম্পিউটারের জনক কে, পার্সোনাল কম্পিউটারের জনক কে, সুপার কম্পিউটারের জনক কে, প্রথম কম্পিউটারের জনক কে ইত্যাদি নিয়ে নানান ধরনের প্রশ্নের উত্তর।

যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আমি উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো।

এছাড়াও আপনি যদি ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, ওয়ার্ডপ্রেস, ইউটিউবিং, টেকনোলজি বিভিন্ন টিপ্স এন্ড ট্রিক্স, ডিজিটাল স্কিল শিখতে চান তাহলে আমার ইউটিউব চ্যানেল আজই সাবস্ক্রাইব করে ফেলুন। কারন আমি প্রতিনিয়ত ডিজিটাল স্কিল বিষয়ক টিউটোরিয়াল পাবলিশ করে যাচ্ছি আমার চ্যানেলে।

Leave a Comment

Don`t copy text!