ফ্রিল্যান্সিং কোর্স / আমাদের সার্ভিস

2022 সালে প্রফেশনাল ওয়েব ডেভেলপার (পর্ব-১)

আপনি কি ২০২২ সালে এসে একজন প্রফেশনাল ওয়েব ডেভেলপার হতে চাচ্ছেন? তাহলে আজকের এই পর্বটি আপনার জন্য।

কারন আজকের এই পর্বে আমি একদম শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সবকিছু আপনাকে বলে দিবো ২০২২ সালে এসে কিভাবে একজন প্রফেশনাল ওয়েব ডেভেলপার হওয়া যায়, কি কি শিখতে হবে, কিভাবে কোথা থেকে শিখতে হবে এবং শিখতে কতদিন লাগে।

তো চলুন শুরু করা যাক,

একটি ওয়েবসাইট দুইটা অংশে ভাগ করা থাকে। একটি হচ্ছে ডিজাইনের অংশ এবং আরেকটি হচ্ছে ডেভেলপমেন্টের অংশ। প্রফেশনাল ওয়েব ডেভেলপার হতে হলে আপনাকে দুইটাই শিখতে হবে।

ওয়েব ডেভেলপার হতে কি কি শিখতে হবে

প্রথমেই আমরা ডিজাইন অংশ শিখবো।

ওয়েবসাইট ডিজাইন শেখার জন্য বা ওয়েব ডেভেলপার হতে প্রথমেই আপনাকে বেসিক জিনিস পত্র শিখতে হবে।

১। বেসিক জিনিস পত্রের মধ্যে দুইটা ভাষা আমাদের শিখতে হবে। একটি হচ্ছে HTML, CSS।

এইচটিএমএল দিয়ে একটি ওয়েবসাইটের গঠনপ্রণালী তৈরি করা হয়। আর সিএসএস দিয়ে সেই ওয়েবসাইটের ডিজাইন করা হয়।

যেমন, একটি উধাহরন দিয়ে আপনাকে বুঝিয়ে দিচ্ছি,

যখন একটি বাড়ি তৈরি করা হয় তখন প্রথমেই ইট দিয়ে বাড়িটি দার করানো হয়, আর এই ইট দিয়ে তৈরি করা বাড়িটি কিন্তু সুন্দর হয় না, তাই আরো সুন্দর করার জন্য রড, সিমেন্ট, বালু ব্যবহার করে বাড়িটির ডিজাইন করা হয়।

এইযে প্রথমে ইট দিয়ে বাড়িটি তৈরি করা হয়েছে এটাই হচ্ছে এইচটিএমএল, আর বাড়িটি সুন্দর করার জন্য রড, সিমেন্ট, বালু ব্যবহার করা হয়েছে এটাই হচ্ছে সিএসএস। আশা করি বুঝতে পারছেন এইচটিএমএল এবং সিএসএস এর কাজ কি?

এখন এই HTML, CSS আপনি কোথা থেকে শিখবেন এবং এই দুইটা ভাষা শিখতে কতদিন লাগবে?

আপনি যদি নিয়মিত 2/3 ঘন্টা সময় দিয়ে প্রতিদিন প্র্যাকটিস করেন তাহলে 2 সপ্তাহের মতো লাগবে।

আরো পড়ুনঃ

  1. ওয়েবসাইট কিভাবে তৈরী করতে হয়।ওয়েবসাইট কিভাবে খুলবো
  2. ৫টি সেরা ওয়েব ডিজাইন শেখার ওয়েবসাইট
  3. ফ্রিতে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট শিখে ক্যারিয়ার গড়ুন

কোথা থেকে শিখবো?

এই দুইটি ভাষা শিখার জন্য ইউটিউবে যাবেন, এরপর , moshiur নামে একটি ইউটিউব চ্যানেল আছে সেখান থেকে html, css প্লেলিস্ট শেষ করবেন। আমি নিজেও সেখান থেকেই শিখেছি।

এছাড়াও w3schools.com  নামে একটি ওয়েবসাইট আছে সেখানে গিয়ে উপরের মেনুবার থেকে টিউটোরিয়াল মেন্যুতে ক্লিক করলেই এইচটিএমএল এবং সিএসএস টিউটোরিয়ালগুলো কমপ্লিট করতে পারেন।

২। ২ সপ্তাহ সময় নিয়ে এইচটিএমএল, সিএসএস শেখার পর আপনাকে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হবে।

html, css ব্যবহার করে ৩/৪ টি ওয়েবসাইট তৈরি করতে হবে। ডিজাইন যেমনই হোক সমস্যা নেই।

ওয়েবসাইট যে আকর্ষণীয় হতে হবে এমন কোনো কথা নেই।আপনার নিজের ইচ্ছামতো ওয়েবসাইট তৈরি করে ফেলবেন কিন্তু তৈরি অবশ্যই করতে হবে।

3। এইচটিএমএল, সিএসএস শেখার পর যেই বিষয়টা আপনাকে শিখতে হবে সেটা হচ্ছে git & git-hub।

একটি ওয়েবসাইট তৈরি করলেই কাজ শেষ হয় না। সেটার ভার্সন আপডেট করতে হয় মানে ওয়েবসাইট টি আপডেট এর কাজ করতে হয়।

এছাড়াও যেহেতু ওয়েবসাইট কোডিং করে তৈরি করা হয় সেহেতু মাঝে মধ্যেই ওয়েবসাইটের বিভিন্ন কোড পরিবর্তন করতে হয়। আর সেটা একা করা অনেক মুশকিল হয়ে যায়। টিম নিয়ে কাজ করতে হয়।

আর এই কারনেই git & git-hub আমাদের শিখতে হবে যাতে টিমের সকল মানুষ বা যেকেউ কোডিং করে তৈরি করা আপনার ওয়েবসাইট টি নিয়ে সহজে কাজ করতে পারে।

git & git-hub এই দুইটা কোথা থেকে শিখবেন এবং শিখতে কতদিন লাগে?

আগের মতই ইউটিউব থেকেই শিখতে পারবেন। অনেক চ্যানেল রয়েছে তবে একটি চ্যানেল ফলো করা সবচেয়ে সেরা হবে। আর সেই চ্যানেলের নাম হচ্ছে আনিসুল ইসলাম। এছাড়াও নিচে একটি ভিডিও দিলাম যেটার মাধ্যমে আপনি শিখতে পারেন।

যদি মনোযোগ দিয়ে প্রতিদিন একটু একটু করে শিখতে পারেন তাহলে ১ সপ্তাহের থেকেও অনেক কম সময় লাগবে আপনার এই git & git-hub শিখতে।

আজকে এতটুকুই আলোচনা করা হলো। সব একসাথে আলোচনা করলে আর্টিকেলটি অনেক বড় হয়ে যাবে।

আগামি পর্বে আমরা জানবো আর কি কি শিখতে হবে, কোথা থেকে শিখতে হবে এবং সবগুলো বিষয় শিখতে কতদিন লাগবে একজন প্রফেশনাল ওয়েব ডেভেলপার হওয়ার জন্য।

যাইহোক, যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আমি উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো।

এছাড়াও আপনি যদি ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, ওয়ার্ডপ্রেস, ইউটিউবিং, টেকনোলজি বিভিন্ন টিপ্স এন্ড ট্রিক্স, ডিজিটাল স্কিল শিখতে চান তাহলে আমার ইউটিউব চ্যানেল আজই সাবস্ক্রাইব করে ফেলুন। কারন আমি প্রতিনিয়ত ডিজিটাল স্কিল বিষয়ক টিউটোরিয়াল পাবলিশ করে যাচ্ছি আমার চ্যানেলে।

Leave a Comment

Don`t copy text!