ভাষা কাকে বলে কত প্রকার ও কি কি

আপনি কি জানেন ভাষা কাকে বলে? তাহলে আজকের এই পর্বটি আপনার জন্য। কারন আজকের এই পর্বে আমরা ভাষা কাকে বলে কত প্রকার ও কি কি বিস্তারিত জানবো।

তো চলুন শুরু করা যাক,

ভাষা কাকে বলে

ভাষা হচ্ছে মানুষের মস্তিষ্কজাত একটি মানসিক ক্ষমতা যা অর্থবাহী বাকসংকেতে রূপান্তরিত হয়ে মানুষের মনের ভাব প্রকাশ করতে সহায়তা করে। অর্থাৎ মনের ভাব প্রকাশ করার জন্য মানুষের কন্ঠনিঃসৃত বা মুখ থেকে বেরিয়ে আসা অর্থপূর্ণ কতগুলো ধ্বনির সমষ্টিকে ভাষা বলা হয়।

সহজভাবে বলতে গেলে, মানুষের কণ্ঠনিঃসৃত বাক্ সংকেতের সংগঠনকে ভাষা বলা হয়। অর্থাৎ বাগযন্ত্রের দ্বারা সৃষ্ট অর্থবোধক ধ্বনির সংকেতের সাহায্যে মানুষের ভাব প্রকাশের মাধ্যমই হলো ভাষা।

ডক্টর মুহম্মদ শহীদুল্লাহর মতে,

মনুষ্যজাতি যে ধ্বনি বা ধ্বনিসকল দ্বারা মনের ভাব প্রকাশ করে, তার নাম ভাষা।

ভাষাগবেষক ড. সুকুমার সেনের মতে,

“মানুষের উচ্চারিত অর্থবহ বহুজনবোধ্য ধ্বনি সমষ্টিই ভাষা।”

দেশ, কাল ও পরিবেশভেদে ভাষার পার্থক্য ও পরিবর্তন ঘটে।

উইকিপিডিয়ার অনুযায়ী, বর্তমানে পৃথিবীতে সাড়ে তিন হাজারের বেশি ভাষা প্রচলিত আছে। তার মধ্যে বাংলা একটি ভাষা। ভাষাভাষী জনসংখ্যার দিক দিয়ে বাংলা পৃথিবীর চতুর্থ বৃহৎ মাতৃভাষা।

বাংলাদেশের অধিবাসীদের মাতৃভাষা বাংলা। এছাড়াও পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা, বিহার, উড়িষ্যা ও আসামের কয়েকটি অঞ্চলের মানুষের মুখের ভাষা বাংলা।

আবার বাহিরের বিভিন্ন দেশেও অনেক বাংলা ভাষাভাষী জনগণ রয়েছে যেমন, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যসহ কয়েকটি দেশে। বর্তমানে পৃথিবীতে প্রায় ত্রিশ কোটি লোকের মুখের ভাষা বাংলা।

ভাষা কত প্রকার ও কি কি

ভাষা প্রধানত ২ প্রকারের হয়ে থাকে। একটি হচ্ছে মৌখিক ভাষা, অন্যটি হচ্ছে লিখিত ভাষা।

মৌখিক ভাষা হচ্ছে যে ভাষার কোনো লেখার ব্যবস্থা নেই। অর্থাৎ মুখে বলার মাধ্যমে যখন আমরা নিজেদের ভাব প্রকাশ করি তখন তাকে মৌখিক ভাষা

লিখিত ভাষা হচ্ছে যে ভাষার লিখন ব্যবস্থা আছে। অর্থাৎ লেখার মাধ্যমে যখন আমরা নিজেদের ভাব প্রকাশ করি তখন তাকে লিখিত ভাষা বলে।

আরো পড়ুনঃ

মৌলিক সংখ্যা কাকে বলে? মৌলিক সংখ্যা বের করার নিয়ম কি

ফেরাউনের লাশ কোথায় পাওয়া যায়? ফেরাউনের জীবনী

ভাষার মৌলিক বা মূল উপাদান কয়টি, ভাষার বৈশিষ্ট্য কি

ভাষার মৌলিক বা মূল উপাদান কয়টি

ভাষার মৌলিক বা মূল উপাদান ৪ টি। সেগুলো হচ্ছে ধ্বনি, শব্দ, বাক্য এবং অর্থ।

ধ্বনি হল ভাষার সবচেয়ে মৌলিক বা মূল উপাদান।

একাধিক ধ্বনির সমন্বয়ে সৃষ্টি হয় শব্দ

আর একাধিক শব্দের সমষ্টি থেকে তৈরি হয় বাক্য।

আর এই বাক্য থেকেই একসময় আমাদের ভাব প্রকাশের ক্ষেত্রে ভাষা তৈরি করে অর্থের পূর্ণতা এনে দেয়।

ভাষার বৈশিষ্ট্য কি

  • যে কোন ধ্বনি বা শব্দ মাত্রই ভাষা নয়
  • বোধগম্য ধ্বনি বা শব্দই হল ভাষার মূল।
  • ভাষা অবশ্যই অর্থপূর্ণ হবে।
  • পরস্পরের ভাবের আদান-প্রদানের মাধ্যম।
  • ভাষা মানুষের স্বভাব, সভ্যতা এবং সংস্কৃতিকে প্রকাশ করে।
  • দেশ, কাল ও পরিবেশভেদে ভাষার পার্থক্য ও পরিবর্তন ঘটে থাকে।

তো এই ছিলো, ভাষা কাকে বলে, ভাষা কত প্রকার ও কি কি, ভাষার মৌলিক বা মূল উপাদান কয়টি, ভাষার বৈশিষ্ট্য কি ইত্যাদি বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর।

যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আমি উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো।

এছাড়াও আপনি যদি ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, ওয়ার্ডপ্রেস, ইউটিউবিং, টেকনোলজি বিভিন্ন টিপ্স এন্ড ট্রিক্স, ডিজিটাল স্কিল শিখতে চান তাহলে আমার ইউটিউব চ্যানেল আজই সাবস্ক্রাইব করে ফেলুন। কারন আমি প্রতিনিয়ত ডিজিটাল স্কিল বিষয়ক টিউটোরিয়াল পাবলিশ করে যাচ্ছি আমার চ্যানেলে।

Skillgori Staff

I am Sajid Imon, Professional Web Designer and WordPress developer.

Don`t copy text!