আমাদের সেবাসমূহ দেখতে ক্লিক করুন

website থেকে অনলাইনে ইনকাম 2022

আপনি কি ২০২২ সালে website থেকে অনলাইনে ইনকাম করতে চান? কোন ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করা যাবে জানতে চান তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য। কারন আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনাকে বলে দিবো website থেকে অনলাইনে ইনকাম কিভাবে করতে হয়, কোন কোন ওয়েবসাইট থেকে অনলাইনে ইনকাম করা যায় ইত্যাদি। তো চলুন শুরু করা যাক,

website থেকে অনলাইনে ইনকাম 2022

নিচে এমনকিছু অনলাইন আয়ের সাইট তুলে ধরা হলো যেই ওয়েবসাইটগুলো থেকে অনলাইন ইনকাম করা যাবে। আপনি নিচের এক বা একাধিক ওয়েবসাইট থেকে আজই ইনকাম শুরু করে দিতে পারেন। তবে এখানে আপনার কোনো কঠিন স্কিল জানা থাকা লাগবে না, সহজ কিছু কাজ জানা থাকলেই অনলাইন ইনকাম করা যাবে।

জে আইটি থেকে আয়

জেআইটি একটি বাংলাদেশী অনলাইন আয় সম্পর্কিত ব্লগ ওয়েবসাইট যেখানে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন বিষয়ের উপর লেখা প্রকাশ করা হয়। এই ওয়েবসাইট থেকে বর্তমানে ওয়েবসাইট মালিকরা তাদের ভিজিটরদের ইনকাম করার সুযোগ করে দিয়েছে। যেকেউ চাইলেই এই ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করতে পারবে। আর সেই ইনকাম বিকাশ, রকেট বা নগদের মাধ্যমে তুলে নিতে পারবে।

এই ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম হয় মূলত লেখালেখি করার মাধ্যমে। আপনি যদি লেখালেখি করতে পছন্দ করেন তাহলে এই ওয়েবসাইট থেকে লেখালেখি করে ইনকাম করতে পারবেন।আপনার লেখা যতবেশি মানুষ পড়বে তত বেশি ইনকাম হবে।

এই ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করার মুল উৎস হচ্ছে ভিজিটরদের বিভিন্ন কোম্পানির এড বা বিজ্ঞাপন দেখানো। যত বেশি ভিজিটর সেই বিজ্ঞাপন দেখবে তত বেশি ইনকাম হবে। এছাড়াও প্রতি আর্টিকেলে নির্দিষ্ট পরিমান টাকা দেয়া হয়, আবার কাউকে জয়েন করিয়েও ইনকাম করার সুযোগ করে দিয়েছে এই ওয়েবসাইট মালিকরা। তাই এখনই ওয়েবসাইটে রেজিস্টার করে ইনকাম করা শুরু করে দিন।

পেমেন্ট পদ্ধতি:

  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ১. মোবাইল ফ্লেক্সিলোড->সর্বনিম্ন ২০ টাকা
  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ২. বিকাশ ->সর্বনিম্ন ১০০ টাকা
  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ৩. রকেট->সর্বনিম্ন ১০০ টাকা
  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ৪. নগদ->সর্বনিম্ন ১০০ টাকা
  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ৫. শিউরক্যাশ->সর্বনিম্ন ১০০ টাকা

পে আউট রেটঃ

  • প্রতি আর্টিকেল প্রকাশ 10 টাকা থেকে 100 টাকা পর্যন্ত।
  • প্রতি 1000 ভিউ  = দেশ ভেদে 1000 টাকা থেকে 2000 টাকা পর্যন্ত।
  • রেফারেল মেম্বার এর 20%
Grathor থেকে আয়

জেআইটি ওয়েবসাইটের মতো আরো একটি অনলাইন আয় সম্পর্কিত ব্লগ ওয়েবসাইট হচ্ছে গ্রাথর। এখানেও লেখালেখি করে ইনকাম করা যাবে। যাদের লেখালেখি করতে ভালো লাগে তারা এই ওয়েবসাইটে একজন লেখক হিসেবে জয়েন করে ইনকাম করতে পারবেন।

গ্রাথর ওয়েবসাইট থেকে কয়েকভাবে ইনকাম করা যাবেঃ

  1. পোস্ট লিখে আয় করা যাবে
  2. পোস্ট শেয়ার করে আয় করা যাবে
  3. সেরা লেখক হিসেবে এক্সট্রা বোনাস ইনকাম
  4. Task কমপ্লিট করে আয় করা যাবে
  5. পোস্ট পড়লে টাকা আয় করা যাবে
  6. এফিলিয়েট বা অন্যদের রেফার করে আয় করা যাবে

জেআইটি ওয়েবসাইটের মতো ইনকাম সিস্টেম হলেও এই ওয়েবসাইটে ইনকাম করার কিছু নিয়মকানুন রয়েছে। এই ওয়েবসাইটে মুলত দুই ধরনের মেম্বারশিপ রয়েছে। একটি হচ্ছে ফ্রি এবং অন্যটি প্রিমিয়াম। দুই মেম্বারের ইনকাম সিস্টেম ভিন্ন।পোষ্টের মান অনুযায়ী ফ্রি মেম্বারদের ১০ থেকে ৫০ টাকা এবং প্রিমিয়াম মেম্বারদের ১৫ থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত দেয়া হবে

এছাড়াও প্রতি মাসে যে সেরা লেখক হবে সে এক্সট্রা বোনাস পাবে।যে সদস্য ৫০০ এর বেশি সংখ্যাক পোস্ট লিখবে তাকে গোল্ডেন বোনাস দেয়া হবে। আবার কাউকে নিজের রেফারেল লিংক দিয়ে জয়েন করালে ১০০ টাকা বোনাস পাওয়া যাবে।

পেমেন্ট পদ্ধতি:

  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ১. বিকাশ। ভবিৎষতে আরো পেমেন্ট পদ্ধতি গুলো যোগ করা হবে।
  • ফ্রি মেম্বাররা ৳১০০০ টাকা, প্রিমিয়াম মেম্বাররা ৳৮০০ টাকা এবং প্রিমিয়াম মেম্বারশিপ Pro ৳৬০০ টাকা হলে পেমেন্ট নিতে পারবে
BWM থেকে আয়

BWM হচ্ছে আমার দেখা সবথেকে সেরা একটি ফ্রিলান্সিং মার্কেট যেখানে নিজের বিভিন্ন ডিজিটাল সেবা অন্যদের কাছে বিক্রি করে ইনকাম করা যায়। আপনার কাছে যদি কোনো ডিজিটাল পণ্য থাকে তাহলে সেটা এই ওয়েবসাইটে বিক্রি করার জন্য লিস্টিং করতে পারেন। কারো সেটা প্রয়োজন হলে তখন কিনে নিবে। বর্তমানে এই ওয়েবসাইটের নাম ডিলান্সার।

ওয়েবসাইট থেকে আয়

এই ওয়েবসাইটে যেসকল বিষয় বিক্রি করা হয় যেমন,

  • গুগল এডসেন্স বিক্রি
  • ইউটিউব চ্যানেল বিক্রি
  • ইউটিউব ওয়াচটাইম এবং সাবস্ক্রাইবার বিক্রি
  • ইনকাম এপ্স বিক্রি
  • ওয়ার্ডপ্রেস থিম ও প্লাগিন বিক্রি
  • বিভিন্ন সিমের মিনিট ও ইন্টারনেট বিক্রি
  • ওয়েবসাইট বিক্রি করে আয় করা যায়
  • এমনকি ফেসবুক পেজ, গ্রুপ বা নিজের ফেসবুক আইটি বিক্রি করে ইনকাম করা যায়।

এগুলো ছাড়াও আরো অনেককিছু বিক্রি করা যায় এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে।

পেমেন্ট পদ্ধতি:

  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ১. বাংলাদেশি বিকাশ
  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ২. বাংলাদেশি রকেট
  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ৩. বাংলাদেশি নগদ
  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ৪. ভিসা
  • পেমেন্ট পদ্ধতি:৫. মাস্টারকার্ড

এখনই আপনার কাজে যে ডিজিটাল পণ্য রয়েছে সেটা বিক্রি করে ফেলুন বাংলাদেশের সবথেকে জনপ্রিয় সাইট ডিলান্সারে।

বিল্যান্সার থেকে আয়

বিলান্সার হচ্ছে একটি বাংলাদেশি ফ্রিলান্সিং ওয়েবসাইট যেখানে ডিজিটালি ডেলিভার করা যায় এমন সকল সেবা অন্যদের দেয়ার মাধ্যমে ইনকাম করা যাবে। আপনি যদি কোনো বিষয়ে এক্সপার্ট হয়ে থাকেন বা এমন কোনো কাজ পারেন যেটা অন্য কারো প্রয়োজন হয় তাহলে সেই কাজটিকে সেবা হিসেবে এই ওয়েবসাইটে বিক্রি করতে পারবেন।

দেশ বিদেশের অনেক বায়ার তাদের প্রয়োজনীয় বিভিন্ন কাজ এখানে পোস্ট করে থাকে। পরবর্তীতে যদি কেউ সেই কাজটি পারে তাহলে সেটা করে ইনকাম করে থাকে। বিলান্সারে কিছু জনপ্রিয় কাজের ক্যাটাগরি হচ্ছেঃ

  • ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্ট/ওয়েবসাইট তৈরি
  • ডিজাইন সম্পর্কিত কাজ যেমন, ব্যানার/পোস্টার/লোগো ইত্যাদি ডিজাইন
  • ডিজিটাল মার্কেটিং/প্রচারনা সম্পর্কিত কাজ
  • লেখালেখি এবং ভাষা ট্রান্সলেসন ইত্যাদি সহ অনেক কাজ রয়েছে

এই ওয়েবসাইটে ইতিমধ্যে ১৩৪৪৫টি কাজ পোস্ট করা হয়েছে এবং ৩৭,৮২৪,৬২৭ টাকার কাজ করা হয়েছে। তাই আর দেরি কেন এখনই রেজিস্টার করে আপনার সেবাটি দিয়ে ইনকাম শুরু করে দিন।

পেমেন্ট পদ্ধতি:

  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ১. পেপাল
  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ২. ভিসা
  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ৩. মাস্টারকার্ড
  • পেমেন্ট পদ্ধতি: ৪. বাংলাদেশি বিকাশ

বিলান্সারের মতো বাংলাদেশে আরো দুটি ফ্রিলান্সিং ওয়েবসাইট রয়েছে । একটি হচ্ছে কাজকি, অন্যটি হচ্ছে স্বাধীন কাজ। এগুলোতেও একইভাবে সেবা দিয়ে ইনকাম করা যাবে।

টেকটিউন্স থেকে আয়

website থেকে অনলাইনে ইনকাম করার আরো একটি জনপ্রিয় এবং সবথেকে পুরনো একটি সাইট হলো টেকটিউন্স। ওয়েবসাইটটি অনেক পুরনো। আর এই কারনে হাজার হাজার লেখক এই ওয়েবসাইটে লেখালেখি করার মাধ্যমে ইনকাম করছে।বাংলাদেশে যতগুলো টেকনলোজি ওয়েবসাইট রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম একটি সাইট হচ্ছে এই টেকটিউন্স। তাই আজই জয়েন করে হয়ে যান তাদের মধ্যে একজন টেকটিউনার।

এই ছিলো website থেকে অনলাইনে ইনকাম করার জনপ্রিয় ৫টি সাইট। এই ওয়েবসাইটগুলোতে যদি আপনি নিয়মিত কাজ করেন তাহলে নিজের পকেট খরচ তো উঠাতেও পারবেন সাথে নিজের পরিবারকেও আর্থিকভাবে সহায়তা করতে পারবেন। যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আমি উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো ইনশাল্লাহ।

এছাড়াও আপনি যদি ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, ওয়ার্ডপ্রেস, ইউটিউবিং, টেকনোলজি বিভিন্ন টিপ্স এন্ড ট্রিক্স, ডিজিটাল স্কিল শিখতে চান তাহলে আমার ইউটিউব চ্যানেল আজই সাবস্ক্রাইব করে ফেলুন। কারন আমি প্রতিনিয়ত ডিজিটাল স্কিল বিষয়ক টিউটোরিয়াল পাবলিশ করে যাচ্ছি আমার চ্যানেলে।

Leave a Comment

Don`t copy text!
Share via
Copy link
Powered by Social Snap