মৌলিক সংখ্যা কাকে বলে? মৌলিক সংখ্যা বের করার নিয়ম কি

আপনি কি জানেন মৌলিক সংখ্যা কাকে বলে? মৌলিক সংখ্যা নির্ণয় করার উপায়? তাহলে আজকের এই পর্বটি আপনার জন্য। কারন আজকের এই পর্বে আমরা মৌলিক সংখ্যার বিস্তারিত জানবো।

তো চলুন শুরু করা যাক,

এছাড়াও এই পর্ব থেকে আপনি আরো জানতে পারবেন

  • পূর্ণ সংখ্যা কাকে বলে
  • স্বাভাবিক সংখ্যা কাকে বলে
  • মৌলিক উৎপাদক কাকে বলে
  • জোড় সংখ্যা কাকে বলে
  • মৌলিক সংখ্যা বের করার নিয়ম কি
  • ১০১ থেকে ২০০ পর্যন্ত মৌলিক সংখ্যা কয়টি
  • পরস্পর মৌলিক সংখ্যা কাকে বলে
  • যৌগিক সংখ্যা কাকে বলে

মৌলিক সংখ্যা কাকে বলে

মৌলিক সংখ্যা হল একটি প্রাকৃতিক  সংখ্যা যার দুটো উৎপাদক আছে যেমন, ১ এবং ঐ সংখ্যাটি নিজে। অর্থাৎ যে সংখ্যাকে শুধুমাত্র ১ এবং ঐ সংখ্যা ছাড়া অন্য কোন সংখ্যা দ্বারা ভাগ করা যায় না সে সংখ্যা গুলোকেই মৌলিক সংখ্যা বলে। যেমন, ৩,৫,৭,১১ ইত্যাদি।

১ এর উপরে যেকোনো মৌলিক সংখ্যাকে ১ বাদে তার আগ পর্যন্ত সকল মৌলিক সংখ্যার গুনফল হিসাবে প্রকাশ করা যায়।

মৌলিক সংখ্যার কোন প্রকৃত উৎপাদক নেই এবং কোনো ঋণাত্বক সংখ্যা মৌলিক সংখ্যা হতে পারে না।

মৌলিক সংখ্যা গুলো কি কি

মৌলিক সংখ্যা অসীম সংখ্যক রয়েছে।

জুলাই ২০২২-এর হিসাব অনুযায়ী, সর্ববৃহৎ মৌলিক সংখ্যাতে ২৩২৪৯২৫ টি অঙ্ক আছে।

যাইহোক, ১ থেকে ১০১ এর মধ্যে প্রথম ছাব্বিশটি মৌলিক সংখ্যাগুলো হলো ২, ৩, ৫, ৭, ১১, ১৩, ১৭, ১৯, ২৩, ২৯, ৩১, ৩৭, ৪১, ৪৩, ৪৭, ৫৩, ৫৯, ৬১, ৬৭, ৭১, ৭৩, ৭৯, ৮৩, ৮৯, ৯৭, ১০১

আর ১০১ থেকে ২০০ পর্যন্ত মোট ২১ টি মৌলিক সংখ্যা রয়েছে। সংখ্যাগুলো হচ্ছে, ১০১, ১০৩, ১০৭, ১০৯, ১১৩, ১২৭, ১৩১, ১৩৭, ১৩৯, ১৪৯, ১৫১, ১৫৭, ১৬৩, ১৬৭, ১৭৩, ১৭৯, ১৮১, ১৯১, ১৯৩, ১৯৭, ১৯৯

৩ এর চেয়ে বড় প্রত্যেক মৌলিক সংখ্যার বর্গকে ১২ দ্বারা ভাগ করলে ১ অবশিষ্ট থাকে।

মৌলিক সংখ্যা বের করার নিয়ম কি

মৌলিক সংখ্যা বের করার অনেক নিয়ম রয়েছে তবে সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি হচ্ছে পরীক্ষামূলক ভাগ। এখানে সংখ্যাকে n ধরা হয় এবং ২ থেকে শুরু করে n এর বর্গমূল পর্যন্ত কোনো দুইটি সংখ্যার গুনফল কিনা তা দেখতে হয়।

এছাড়াও আরো একটি কার্যকরী পদ্ধতি হচ্ছে মিলার-রাবিন মৌলিকতা পরীক্ষা যা দ্রুত ফলাফল দেয় কিন্তু এখানে ভুলের সম্ভাবনা থাকে।

১০১ থেকে ২০০ পর্যন্ত মৌলিক সংখ্যা কয়টি

মৌলিক সংখ্যা কি, এটা বের করার নিয়ম কি সেটা তো জেনে গেলাম। এখন চলুন জেনে নেই কোন সংখ্যাতে মৌলিক সংখ্যা কয়টি?

মৌলিক সংখ্যা কাকে বলে

১ থেকে ১০০ পর্যন্ত মৌলিক সংখ্যা হচ্ছে ২৫ টি। এই ২৫টি মৌলিক সংখার মধ্যে ২ একমাত্র জোড় মৌলিক সংখ্যা।

অন্যদিকে, ১০১ থেকে ২০০ পর্যন্ত মৌলিক সংখ্যা হচ্ছে ২১ টি।

পরস্পর মৌলিক সংখ্যা কাকে বলে

পরস্পর মৌলিক সংখ্যা হচ্ছে যখন দুটি সংখ্যার গ সা গু ১ হয়। অর্থাৎ যে সকল স্বাভাবিক সংখ্যার ১ ছাড়া অন্য কোনো সাধারণ গুণিতক থাকে না এবং একটিকে দিয়ে অন্যটিকে নিঃশেষে ভাগ করা যায় না তাদের পরস্পর মৌলিক সংখ্যা বলে। যেমন, ৯, ১০, ১৫, ১৬ পরস্পর মৌলিক সংখ্যা।

মৌলিক জোড় সংখ্যা কাকে বলে

যে জোড় সংখ্যার গুননীয়ক ১ ও ঐ সংখ্যাটি তাদের মৌলিক জোড় সংখ্যা বলা হয়। জোড় মৌলিক সংখ্যা ১টি, সেটা হচ্ছে ২।

অংকে ২ একমাত্র জোড় মৌলিক সংখ্যা। কারন আপনি যেকোনো জোড় সংখ্যা ২ দিয়ে ভাগ করতে পারবেন। কিন্তু ২ কে ১ ও ২ ছাড়া অন্য কোনো সংখ্যা দিয়ে ভাগ করা যায় না।

আপনি কি জানেন?

ফেরাউনের লাশ কোথায় পাওয়া যায়? ফেরাউনের জীবনী

বৃত্ত কাকে বলে, কত প্রকার ও কি কি?

সৌরজগতে গ্রহ কয়টি? ৮টি নাকি ১১টি (বিস্তারিত জানুন)

যৌগিক সংখ্যা কাকে বলে

যৌগিক সংখ্যা হচ্ছে মৌলিক সংখ্যা বাদে যেগুলো ১ এর চেয়ে বড় সকল সংখ্যা। অর্থাৎ যে সংখ্যার গুণনীয়কসমূহের মধ্যে ১ এবং ওই সংখ্যাটি ছাড়াও অন্য এক বা একাধিক সংখ্যা থাকে তাকে যৌগিক সংখ্যা বলে।

যৌগিক সংখ্যা হলো একটি ধনাত্মক পূর্ণসংখ্যা যেখানে কমপক্ষে ১ এবং সংখ্যাটি নিজে ছাড়া অন্য একটি বিভাজক থাকে।প্রতিটি ধনাত্মক পূর্ণসংখ্যাই যৌগিক, মৌলিক বা ১ হতে পারে।

পূর্ণ সংখ্যা কাকে বলে

পূর্ণ সংখ্যা কাকে বলে

পূর্ণ সংখ্যা হচ্ছে সকল সকল ধনাত্মক ও ঋণাত্মক অখণ্ড সংখ্যাসমূহ। অর্থাৎ যেসমস্ত সংখ্যার কোন ভগ্নাংশ থাকে না তাদের বলে পূর্ণ সংখ্যা। যেমন: ১, -৫, ১২ ইত্যাদি।

সাধারণত পূর্ণ সংখ্যা ৩ প্রকারের হয়ে থাকে।

  1. ধনাত্মক পূর্ণ সংখ্যা
  2. শূন্য (0 )
  3. ঋণাত্মক পূর্ণ সংখ্যা

শূন্য ছাড়া বাকি স্বাভাবিক সংখ্যাগুলিকে বলা হয় ধনাত্মক পূর্ণসংখ্যা যাকে ইংরেজিতে বলা হয় Positive Integers।

আর প্রত্যেক ধনাত্মক পূর্ণসংখ্যার একটি এবং একটিমাত্র ঋণাত্মক বিপরীত সংখ্যা পাওয়া যায়। অর্থাৎ ধনাত্মক পূর্ণসংখ্যাগুলির ঋণাত্মক বিপরীতগুলিকে বলা হয় ঋণাত্মক পূর্ণসংখ্যা বা Negative Integer।

পূর্ণ সংখ্যা সেট বোঝাতে ইংরেজিতে z সংকেতটি ব্যবহৃত হয়।

স্বাভাবিক সংখ্যা কাকে বলে

গণিতে স্বাভাবিক সংখ্যা হলো সেইসব পূর্ণসংখ্যা যা গণনার কাজে ব্যবহার করা হয়। অর্থাৎ শূন্য অপেক্ষা বড় সকল পূর্ণ সংখ্যাকে স্বাভাবিক সংখ্যা বলে। একে ধনাত্মক অখণ্ড সংখ্যাও বলা হয়। যেমন, ১,২,৩,৪ ইত্যাদি।

মানুষ প্রতিদিনের গণনার কাজে এই সংখ্যাগুলো ব্যবহার করে।

স্বাভাবিক সংখ্যার সেট অসীম। একে ইংরেজিতে  দিয়ে প্রকাশ করা হয়।

মৌলিক উৎপাদক কাকে বলে

সকল যৌগিক সংখ্যাকে কতকগুলো মৌলিক সংখ্যার গুণফল রূপে প্রকাশ করাকে ওই যৌগিক সংখ্যাটির মৌলিক উৎপাদক বলে।

সকল যৌগিক সংখ্যাই এক বা একাধিক মৌলিক সংখ্যার সমন্বয়ে গঠিত,সেই সকল সংখ্যা হচ্ছে প্রদত্ত সংখ্যার মৌলিক উৎপাদক।

তো এই ছিলো, পূর্ণ সংখ্যা কাকে বলে, স্বাভাবিক সংখ্যা কাকে বলে, মৌলিক উৎপাদক কাকে বলে, জোড় সংখ্যা কাকে বলে, মৌলিক সংখ্যা বের করার নিয়ম কি, ১০১ থেকে ২০০ পর্যন্ত মৌলিক সংখ্যা কয়টি, পরস্পর মৌলিক সংখ্যা কাকে বলে, যৌগিক সংখ্যা কাকে বলে, মৌলিক সংখ্যা কাকে বলে ইত্যাদি বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর।

যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আমি উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো।

এছাড়াও আপনি যদি ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, ওয়ার্ডপ্রেস, ইউটিউবিং, টেকনোলজি বিভিন্ন টিপ্স এন্ড ট্রিক্স, ডিজিটাল স্কিল শিখতে চান তাহলে আমার ইউটিউব চ্যানেল আজই সাবস্ক্রাইব করে ফেলুন। কারন আমি প্রতিনিয়ত ডিজিটাল স্কিল বিষয়ক টিউটোরিয়াল পাবলিশ করে যাচ্ছি আমার চ্যানেলে।

Skillgori Staff

I am Sajid Imon, Professional Web Designer and WordPress developer.

Don`t copy text!