Avada প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডাউনলোড করে নিন

avada wordpress theme

কেমন হতো যদি একটি মাত্র ওয়ার্ডপ্রেস থিম ব্যবহার করেই ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে প্রায় সকল ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করা যেতো! এটা কি সম্ভব? হ্যাঁ অবশ্যই সম্ভব। শুধুমাত্র একটি প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম ব্যবহার করার মাধ্যমেই ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে প্রায় সব ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করা যাবে। থিমটির নাম হচ্ছে Avada

এই থিম ব্যবহার করে ইকমার্স ওয়েবসাইট, বিজনেস ওয়েবসাইট, এজেন্সি ওয়েবসাইট, এডুকেশনাল ওয়েবসাইট সহ সকল ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করা যাবে। পুরো পৃথিবীতে প্রায় ৭ লাখ ওয়েবসাইট এই Avada ওয়ার্ডপ্রেস থিম দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। ৮ বছর ধরে নাম্বার ১ পজিশনে আছে এই ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট বিল্ডার থিমটি। আর তাই ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে আপনার যেকোনো ওয়েবসাইট তৈরি করার প্রয়োজন হলে এই থিমটি ব্যবহার করতে পারেন। আজকের এই পর্বে আমি এই থিমের রিভিউ শেয়ার করবো এবং সাথে ডাউনলোড লিঙ্ক দিয়ে দিবো যাতে প্রিমিয়াম থিমটি ফ্রিতে ব্যবহার করে নিজের ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। তো চলুন শুরু করা যাক,

প্রথমেই জেনে নেই Avada থিমের কিছু অসাধারণ বৈশিষ্ট্য

  1. যেকোনো ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য Avada থিমটিতে রয়েছে ৮৩ টি রেডিমেট ওয়েবসাইট যেগুলো ব্যবহার করে মাত্র ১ ক্লিকেই ওয়েবসাইট তৈরি করা যাবে। পূর্বে থেকে কোডিং জানা লাগবে না।
  2. নতুন আপডেট আসার সাথে থিমের স্পিডের অনেক উন্নত হয়েছে। থিমটি ব্যবহার করে ওয়েবসাইট তৈরি করলে সেই ওয়েবসাইটের পারফরমেন্স অনেক ভালো দেখাবে।
  3. থিমটিতে আছে উকমার্স বিল্ডার যার মাধ্যমে খুব সহজেই প্রফেশনাল ইকমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করা যাবে। উকমার্স বিল্ডারটি দিয়ে ইকমার্স ওয়েবসাইটের জন্য নিজের মতো করে আনলিমিটেড পেজ যেমন, কাস্টম কার্ট পেজ, শপ পেজ, চেকআউট, একাউন্ট, প্রোডাক্ট পেজ সহ প্রায় সকল ধরনের ইকমার্স পেজ ডিজাইন করা যাবে। আর এই পেজ ডিজাইন করার জন্য কোডিং জানা লাগবে না
  4. থিমটিতে আরো রয়েছে কাস্টম হেডার এবং ফুটার বিল্ডার যার মাধ্যমে নিজের ইচ্ছামতো ওয়েবসাইটের হেডার এবং সাথে ফুটার ডিজাইন করা যাবে
  5. থিমটিতে পেজের লেআউট পরিবর্তন করার জন্য রয়েছে কন্টেন্ট লেয়াউট। যার সাহায্যে কন্টেন্ট ডিজাইন কেমন হবে সেটা ঠিক করা যাবে যেমন, সাইডবার ডানে নাকি বামে হবে, ইমেজ উপরে না সাইডে হবে ইত্যাদি
  6. থিমটিতে আছে ফর্ম বিল্ডার যার সাহায্যে যেকোনো ধরনের ফর্ম তৈরি করা যাবে তাও আবার কোডিং না জেনেই
  7. থিমটিতে রয়েছে ১২০ এর উপরে এলিমেন্টস, ডিজাইন, লেয়াউট ইত্যাদি যেমন, বাটন, পোস্ট কার্ড, ট্যাব, শেয়ার আইকন, কাস্টম আইকন আপলোডার ইত্যাদি
  8. থিমটির সাথে আছে ৭টি প্রিমিয়াম প্লাগিন যেগুলো একদম ফ্রিতে ব্যবহার করা যাবে
  9. ৪০০ এর উপরে রেডিমেট পেজ আছে যেগুলো একটি প্রফেশনাল ওয়েবসাইট তইর করার জন্য যথেষ্ট
  10. এছাড়াও থিমটিতে রয়েছে ইমেজ প্রিলোডিং, পোস্ট কার্ড লেয়াউট, ১০০% মোবাইল রেস্পন্সিভ, মাল্টিপল ভাষা সাপোর্ট করে ইত্যাদি

আরো পড়ুন

  1. কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয়
  2. প্রিমিয়াম ইকমার্স ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন
  3. প্রিমিয়াম এডুকেশন ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন
  4. প্রিমিয়াম পোর্টফলিও ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন
  5. প্রিমিয়াম সিভি/রিজিউম ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন
  6. প্রিমিয়াম মেডিক্যাল ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন

প্রিমিয়াম থিমটি ফ্রিতে ডাউনলোড করার জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুন। লিঙ্ক থেকে ডাউনলোড করার পর একটি জিপ ফাইল পাবেন তাই প্রথমেই সেটাকে আনজিপ করতে হবে। এরপর অনেকগুলো ফোল্ডার পাবেন সেখান থেকে এভাডা থিম নামে যেই ফোল্ডারটি দেখতে পাবেন সেটি হচ্ছে মেইন থিম ফাইল। সেখান থেকে প্রথমে মেইন থিম ফাইলটি আপলোড করতে হবে। তারপর চাইল্ড থিম ফাইলটি আপলোড করে একটিভ করতে হবে। একটিভ করার পর থিমের সাথে কিছু প্লাগিন আছে সেগুলো ইন্সটল করে একটিভেট করতে হবে।

এখানে একটি বিষয় জানার আছে সেটি হচ্ছে থিমটি অন্যসব থিমের মতো করে ডিজাইন করা হয়নি। এই Avada থিমের সাথে একটি বিল্ড-ইন পেজ বিল্ডার আছে যেটা ব্যবহার করার মাধ্যমেই এই থিমটি তৈরি করা হয়েছে। আর তাই আপনি যদি এই পেজ বিল্ডার সম্পর্কে জানেন তাহলে থিমের সাথে যেই রেডিমেট ডেমোগুলো রয়েছে সেগুলো খুব সহজেই কাস্টমাইজ করা যাবে।

যাইহোক, এই ছিল Avada , একটি প্রফেশনাল ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডাউনলোড এবং সেটআপ করার সম্পূর্ণ নিয়মাবলী। আশা করছি এখন থিমের কিছু অসাধারণ বৈশিষ্ট্য, সেটআপ প্রক্রিয়া সম্পর্কে আপনার ধারনা হয়েছে। যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আমি উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো।

এছাড়াও আপনি যদি ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, ওয়ার্ডপ্রেস, ইউটিউবিং, টেকনোলজি বিভিন্ন টিপ্স এন্ড ট্রিক্স, ডিজিটাল স্কিল শিখতে চান তাহলে আমার ইউটিউব চ্যানেল আজই সাবস্ক্রাইব করে ফেলুন। কারন আমি প্রতিনিয়ত ডিজিটাল স্কিল বিষয়ক টিউটোরিয়াল পাবলিশ করে যাচ্ছি আমার চ্যানেলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here