Flatsome প্রিমিয়াম ইকমার্স ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডাউনলোড করে নিন

flatsome wordpress theme

ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে প্রফেশনাল ইকমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য প্রয়োজন একটি প্রফেশনাল প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম। ফ্রি থিম দিয়েও ওয়েবসাইট তৈরি করা যেতে পারে কিন্তু প্রিমিয়াম থিম দিয়ে যেই ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় সেটা একটি ফ্রি থিম দিয়ে হয় না। তাই আজকের এই পর্বে আমি একটি প্রিমিয়াম থিম রিভিউ দিবো যেটি ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনার বিজনেসের জন্য একটি প্রফেশনাল ইকমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। থিমটির নাম হচ্ছে Flatsome। একটি প্রফেশনাল ইকমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য যেই যেই ফিচার, অপ্সন, ফাংশনালিটি প্রয়োজন তার সবই এই থিমের মধ্যে রয়েছে। তো চলুন দেখে নেই থিমটি কিভাবে ডাউনলোড করবেন এবং ওয়ার্ডপ্রেসে কিভাবে থিমটি সেটআপ দিতে হয় তার পরিপূর্ণ গাইডলাইন।

Flatsome থিম ডাউনলোড এবং সেটআপ প্রক্রিয়া

Flatsome থিমটি যেকোনো শপিং ওয়েবসাইট, কোম্পানি ওয়েবসাইট অথবা নিজের ক্লাইন্টের জন্য ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে। থিমটি এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে কারো যদি কোডিং সম্পর্কে একটুও ধারনা না থাকে তারপরেও এই থিমটি দিয়ে ওয়ার্ডপ্রেসের সাহায্যে একটি প্রফেশনাল ইকমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারে।

প্রথমেই জেনে নেই Flatsome থিমের কিছু অসাধারণ বৈশিষ্ট্য

  1. থিমটির মধ্যে অনেকগুলো রেডিমেট ইকমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করা আছে যেগুলো ব্যবহার করার মাধ্যমে মাত্র ১ ক্লিকেই একটি প্রফেশনাল ইকমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করা যাবে। কোডিং জানার প্রয়োজন হবে না
  2. থিমটিতে রয়েছে লাইভ সার্চ অপ্সন, তাই যেকোনো প্রোডাক্ট খুব সহজেই মেনুর সার্চবার থেকে সার্চ করা যাবে
  3. থিমটিতে আরো রয়েছে ইউএক্স লাইভ পেজ বিল্ডার যার মাধ্যমে নিজে মতো করে পেজ ডিজাইন করা যাবে। এর জন্য কোডিং জানতে হবে না
  4. ওয়েবসাইট কাস্টমাইজ করার জন্য থিমটিতে আরো আছে পাওয়ারফুল থিম অপ্সন যার মাধ্যমে ওয়েবসাইটের যেকোনো কিছু এডিট, ডিলিট, কাস্টমাইজ করা যাবে
  5. থিমটি পুরোপুরি অপ্তিমাইজ করা, এই কারনে থিমটি দিয়ে যেই ওয়েবসাইট তৈরি করা হবে সেটার স্পিড অনেক ফাস্ট হবে
  6. Flatsome থিমটি এটার নিজস্ব ডিজাইনের জন্য অনেক বিখ্যাত।আর এই কারনেই উকমার্স থিমগুলোর মধ্যে নাম্বার ১ বেস্ট সেলিং থিম এবং প্রায় দেড় লাখের বেশি ওয়েবসাইট এই থিমটি দিয়ে তাদের কোম্পানির জন্য একটি ইকমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করেছে
  7. থিমটিতে ৩০০ এর উপরে রেডিমেট সেকশন এবং লেয়াউট লাইব্রেরি রয়েছে যেখানে প্রায় সব ধরনের ফিচার পাওয়া যাবে যেমন, চ্যাটবক্স, মেসেজ বক্স, ব্যানার, ভিডিও গ্যালারি, আইকন বক্স, ম্যাপ ইত্যাদি সহ আরো অনেক রেডিমেট এলিমেন্টস যেগুলো মাত্র ১  ক্লিকেই ওয়েবসাইটে ব্যবহার করা যাবে
  8. Flatsome থিমটিতে অনেকগুলো সুন্দর সুন্দর রেডিমেট পেজ রয়েছে যেমন, এবাউট, ব্লগ, টেস্টিমোনিয়াল, টিম, শপ ইত্যাদি। এগুলো ব্যবহার করার মাধ্যমেও ওয়েবসাইট তৈরি করা যাবে
  9. থিমটি ১২ ধরনের ভাষা সাপোর্ট করে। তাই যেকোনো দেশের ভাষা খুব সহজেই ব্যবহার করে ওয়েবসাইট তৈরি করা যাবে
  10. নিজের মতো করে ওয়েবসাইটের হেডার ডিজাইন করার জন্য রয়েছে হেডার বিল্ডার
  11. থিমটি পুরোপুরি রেস্পন্সিভ, যেকোনো মোবাইল বা কম্পিউটার অথবা অন্য কোনো ডিভাইসে খুব সুন্দরভাবে দেখাবে। কোনোরকম ভেঙ্গে যাবে না
  12. থিমটিতে ২৯ ডলারের একটি প্রিমিয়াম প্লাগিন দেয়া আছে যেটার মাধ্যমে রেডিমেট ব্যানার এবং সাথে স্লাইডার তৈরি করা যাবে
  13. এছাড়াও থিমটিতে রয়েছে প্রোডাক্ট সুইস, প্রোডাক্ট ব্যাচ, মেগামেনু, প্রোডাক্ট ট্যাব, প্রোডাক্ট ইমেজ লাইটবক্স, টেলিগ্রাম শেয়ার আইকন, ইমেজ গ্রিড, প্রোডাক্ট গ্রিড,কুইক শপিং, আনলিমিটেড ক্যাটাগরি,পেরালাক্স ইফেক্ট, ইমেজ লেজি লোডিং ফিচার, রেডিমেট কন্টাক্ট ফর্ম, আনলিমিটেড প্রোডাক্ট পেজ লেয়াউট,  প্রোডাক্ট ব্যাকগ্রাউন্ড এনিমেশন, আনলিমিটেড হেডার অপ্সন ইত্যাদি সহ আরো অনেক ফিচার

আরো পড়ুন

  1. কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয়
  2. প্রিমিয়াম ইকমার্স ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন
  3. প্রিমিয়াম এডুকেশন ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন
  4. প্রিমিয়াম পোর্টফলিও ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন
  5. প্রিমিয়াম সিভি/রিজিউম ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন
  6. প্রিমিয়াম মেডিক্যাল ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন

এগুলো ছাড়াও আরো অনেক ফিচার রয়েছে থিমটির মধ্যে। যাইহোক, Flatsome থিমটি ডাউনলোড করার জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুন। লিঙ্ক থেকে থিমটি ডাউনলোড করার পর জিপ ফাইলকে প্রথমেই আনজিপ করতে হবে। এরপর অনেকগুলো ফোল্ডার দেখা যাবে সেগুলো থেকে থিম ফাইল নামে একটি ফোল্ডার থাকবে সেটাকে আনজিপ করতে হবে। ওটার মধ্যেই থিমের দুটো মেইন ফাইল আছে। একটি হচ্ছে চাইল্ড এবং আরেকটি হচ্ছে মেইন ভার্সন। প্রথমেই মেইন ভার্সনটাকে আপলোড দিতে হবে, এরপর চাইল্ড ভার্সনকে আপলোড করে সেটাকে একটিভ করতে হবে।

একটিভ করার পর থিমের সাথে কিছু প্লাগিন ইন্সটল করতে বলবে, সেগুলো ইন্সটল করে একটিভ করতে হবে। সবগুলো প্লাগিন একটিভ করার পর ডেমো ইন্সটল করে সবশেষে ওয়েবসাইটটি নিজের মতো করে কাস্টমাইজ করে নিতে হবে। যদি নিজে পারেন তাহলে ভালো, আপনার খরচ কমে যাবে, আর যদি না পারেন তাহলে কোনো ওয়েব ডেভেলপারের সহায়তা নিন।

যাইহোক, এই ছিল Flatsome , একটি প্রফেশনাল ইকমার্স ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডাউনলোড এবং সেটআপ করার সম্পূর্ণ নিয়মাবলী। আশা করছি এখন থিমের কিছু অসাধারণ বৈশিষ্ট্য, সেটআপ প্রক্রিয়া সম্পর্কে আপনার ধারনা হয়েছে। যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আমি উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো।

এছাড়াও আপনি যদি ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, ওয়ার্ডপ্রেস, ইউটিউবিং, টেকনোলজি বিভিন্ন টিপ্স এন্ড ট্রিক্স, ডিজিটাল স্কিল শিখতে চান তাহলে আমার ইউটিউব চ্যানেল আজই সাবস্ক্রাইব করে ফেলুন। কারন আমি প্রতিনিয়ত ডিজিটাল স্কিল বিষয়ক টিউটোরিয়াল পাবলিশ করে যাচ্ছি আমার চ্যানেলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here